জয় বাংলা বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম
"দুনিয়ার মজদুর এক হও, বাংলার মেহনতি মানুষ এক হও"
জয় বঙ্গবন্ধু

 

 

তহবিল ও হিসাব

 

• তহবিলের উৎস

• তহবিল আদায়ের পদ্ধতি

 

সংগঠনের সাধারণ তহবিল শিল্প সম্পর্ক অধ্যাদেশ ১৯৬৯ (সংশোধিত) মতাবেক –

 

• তহবিলের উৎস

১। ইউনিয়নসমূহের অন্তর্ভুক্তিকালীন দেয়া চাঁদা ও অনুদান।

২। সদস্য ও সুভানুধ্যায়ীদের নিকট হইতে প্রাপ্ত এককালীন আনুদান।

৩। গঠনতন্ত্র মোতাবেক প্রাপ্ত চাঁদা।

৪। আদর্শ ও লক্ষ্য অর্জনের জন্য প্রয়োজনীয় চাঁদা, লেভী, বিশেষ সংগ্রহ, দান সংগ্রহ করিতে পারিবে এবং ঐ আর্থ কেন্দ্রীয় তহবিলে জমা হইবে।

 

• তহবিল আদায়ের পদ্ধতি

(১) পদ্ধতিঃ প্রাথমিক সদস্যদের ভর্তি ইউনিয়নসমূহে অন্তরভুক্তিকালীন দেয় চাঁদা ও চাঁদার হার আদায়ের পদ্ধতি, আদায়কৃত অর্থ সংগঠনের কোন স্তর কয়ভাগ পাইবে, যে স্তর যতভাগ পাইবে তাহা জমা রাখার ও খরচ করার পদ্ধতি কেন্দ্রীয় পরিষদ প্রণয়ন করিয়া দিবে।
 

(২) তহবিলের নিরাপত্তাঃ কেন্দ্রীয় পরিষদের উপর তহবিলের দায়িত্ব ন্যস্ত থাকিবে। তহবিলের অর্থ যে কোন আনুমোদিত ব্যাংকে গচ্ছিত থাকিবে। প্রয়োজন আনুযায়ী অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ও সভাপতি অথবা সাধারণ সাধারণ সম্পাদক যুক্ত দস্তখতে চেকের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অর্থ তুলিতে পারিবেন। জরুরী ও অন্যান্য খরচের জন্য সাধারণ সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদক প্রত্যেকে পৃথক পৃথকভাবে ৫,০০০ (পাঁচ হাজার) টাকা পর্যন্ত দৈনিক ক্যাশের আওতায় রাখিতে পারিবেন। অন্যথায় কার্যনির্বাহী পরিষদ সভায় আনুমতির প্রয়োজন হইবে। অসমম্বিত ব্যয় (বাজেট বিহীন ব্যয়) বা খরচের জন্য পরবর্তী কার্যনির্বাহী পরিষদের অনুমোদন লাগিবে।